DDos এটাক প্রতিরোধের উপায়

DDoS (Distributed Denial of Service) সরাসরি হ্যাকিং না; তবে এর মাধ্যমে ছোটখাট যে কোন ওয়েবসাইটের কার্যক্ষমতা কমিয়ে এমনকি বন্ধও করে দেয়া যেতে পারে।

এটা এমন একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে একটি ওয়েবসাইটের এড্রেস বা আইপিতে ক্রমাগত ফেইক রেকুয়েস্ট পাঠানো হয়; আর যেহেতু সাইটটি কোন না কোন সার্ভারে সেভ থাকে, আর সার্ভার মূলত একটি কম্পিউটার। তাই কম সময়ের ব্যবধানে হাজার হাজার রিকোয়েস্ট এর রিপ্লে প্রদান অসম্ভব হয় পড়ে। এটাই DDos এটাক।

সার্ভারের যে কোন একটি সাইট এ এটাকের সম্মূখীন হলে যাতে সকল সাইট বন্ধ না হয় তাই সার্ভারে আপনার সাইটের জন্য সর্বোচ্চ একটা লিমিট নির্ধারিত থাকে,  যার বেশী আপনি চাইলেও রিকোয়েস্ট করতে পারবেন না।

প্রতিরোধের উপায়: DDos প্রতিরোধের শতভাগ কার্যকরী কোন উপায় নেই। তবে, কিছু কৌশল ব্যবহার করতে পারেন আপনি যেমন;

১.  XML-RPC functionality বন্ধ:

.htaccess file ওপেন করে প্রথমে বা শেষদিকে নিচের লাইনগুলি হুবহু টাইপ করুন। এর মাধ্যমে ট্রেসব্যাক এবং পিংব্যাক বন্ধ করা হয়। যা ব্যবহার করা হয় DDos এটাকের জন্য;

# START XML RPC BLOCKING
<Files xmlrpc.php>
Order Deny,Allow
Deny from all
</Files>
# FINISH XML RPC BLOCKING
২. সুরক্ষিত হোস্টিং প্রপাইটর : DDos Attack মূলত সফলভাবে প্রতিহত করা সম্ভব সার্ভার লেভেলে; 

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.